হরিণাকুন্ডুতে ১০ বছরের শিশুকে ধর্ষনের অভিযোগ 

শুক্রবার ১৭ জুন ২০২২ ১৬:৪৫


মোঃ বনি হরিনাকুন্ডু (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি::
ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার ৭ নং রঘুনাথপুর ইউনিয়নের গাড়াবাড়িয়া গ্রামে ১০ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। বুধবার ১৫ জুন বিকালে ওই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যাই।
ধর্ষিতা ওই শিশুর পিতা জানান, গাড়াবাড়িয়া গ্রামের আবুহান এর ছেলে ভোলা (১৯) নামের এই ছেলেটি আমার কন্যাকে পানির ভিতর জর করে ধর্ষণ করে। তিনি আরও বলেন, আমি রাজ মিস্ত্রির কাজ করি, এবং কাজ শেষে সন্ধ্যায় বাড়িতে এসে এমন ঘটনা জানার পর প্রতিবাদ করতে  যাই ওই ছেলের বাড়িতে এবং আমি গেলে ধর্ষক ভোলার পিতা আবুহান ও তার  সহযোগীরা মিলে আমাকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারে এবং বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। এবং আমাকে বলে আমি যেন এই কথা কোথাও না বলি। 
 সে সময় আমার গায়ে থাকা শার্ট ছিড়ে ফেলে। পরে স্থানীয় মেম্বার ও মাতব্বরদের বিষয়টি জানিয়েছি। আমার মেয়ের প্রচুর রক্ত ক্ষরণ  হওয়ায় বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করি।
ধর্ষিতার মা বলেন, আমার মেয়ে প্রথম শ্রেণির ছাত্রী । বর্তমানে আমার মেয়ে খুবই অসুস্থ হয়ে পড়েছে । গতকাল বিকাল থেকে আজ সন্ধা পর্যন্ত কিছুই খায়নি। তিনি আরও বলেন, ভোলার পরিবারের লোকজন আমার স্বামীকে মেরেছে এবং আমাদের ঘরের বাইরে থেকে প্রায় আড়াই ঘন্টা দরজা বন্ধ করে রেখেছিল। বিষয়টি প্রতিবেশীরা বুঝতে পেরে রাত ১০টায় আমাদের ঘরের দরজা খুলে দেয়। এ ঘটনার সঠিক বিচার দাবি করছি।
তিনি আরও বলেন, মেয়েকে হাসপাতালে ভর্তি করায় এবং তার স্বামী রাজ মিস্ত্রির কাজ করায় থানায় মামলা করতে যাওয়া সম্ভব হয় নি। আত্মীয় স্বজন হাসপাতলে আসলে আমরা হরিনাকুন্ডু থানায় মামলা করতে যাব।
এ ঘটনায় হরিনাকুন্ডু থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, এমন একটি ঘটনা সাংবাদিকদের মাধ্যমে শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এমএসি/আরএইচ