স্ত্রীসহ দুই মেয়েকে জবাই করে হত্যা, স্বামী আটক

রবিবার ৮ মে ২০২২ ১২:৩৭


মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি ::
মানিকগঞ্জের ঘিওরে স্ত্রী ও দুই মেয়েকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নৃশংস ভাবে জবাই করে হত্যা করেছে এক পাষণ্ড স্বামী। আজ (৮ মে) রোববার ভোর রাতে উপজেলার বালিয়াখোড়া ইউনিয়নের আঙ্গারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- রুবেলের স্ত্রী লাভলী আক্তার (৩৫), বড় মেয়ে বানিয়াজুরী সরকারি স্কুল এন্ড কলেজের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছোঁয়া আক্তার (১৬) ও ছোট মেয়ে স্থানীয় বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী কথা আক্তার(১২)।

ঘিওর থানার ওসি মো. রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ বিপ্লব জানায়, উপজেলার আঙ্গারপাড়া গ্রামের আব্দুল বারেক এর ছেলে আসাদুর রহমান রুবেল (৪০) গতকাল ভোর রাতের কোনো এক সময় তার স্ত্রী ও দুই মেয়েকে জবাই করে হত্যা করে।

স্থানীয় বালিয়াখোড়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আওয়াল খান বলেন, রুবেল অনেক টাকা ঋণ গ্রস্ত হয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে।আর এতে করে পারিবারিক কলহ বাড়তে থাকে। যার দরুন এমন ঘটনা ঘটতে পারে বলে তিনি ধারণা করেন।

ঘটনার পর দন্ত চিকিৎসক রুবেল পাঁচুরিয়া এলাকায় আত্মহত্যার জন্য ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে শুয়ে পড়েন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পুলিশে সোপর্দ করে।

ঘিওর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. রিয়াজ উদ্দিন আহাম্মেদ বিপ্লব বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, প্রতিবেশীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে রোববার সকালে ইউনিয়নের আঙ্গরপাড়া গ্রামের রুবেলের নিজ বাড়ি থেকে তার স্ত্রী ও দুই মেয়ের রক্তাত্ব মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনার সঙ্গে লাভলীর স্বামী জড়িত থাকতে পারে, এ জন্য তাকে আটক করা হয়েছে।  

শিবালয় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরজাহান লাবনী জানান, প্রাথমিকভাবে এটাকে হত্যা বলেই ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী রুবেল গা ঢাকা দেয়ার চেষ্টা করেছিল। পরবর্তীতে আমরা তাকে পুলিশি নজরদারিতে এনেছি। ঘটনার রহস্য উদঘাটনে স্বামী রুবেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গ্রেপ্তার করা হয়। 

মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় লাভলী আক্তারের ভাই মো. আলম বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

এমএসি/আরএইচ