বাঁধের বেহাল দশা; আতঙ্কে লালমনিরহাটবাসী 

বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ ১৫:২৯


লালমনিরহাট প্রতিনিধি ::
ওয়াপদা বাঁধের বেহাল দশা, লালমনিরহাটবাসী আতঙ্কে। রক্ষণাবেক্ষণ আর সংস্কারের অভাবে লালমনিরহাট জেলার লালমনিরহাট সদর উপজেলার মোগলহাট, কুলাঘাট ও বড়বাড়ী ইউনিয়নের ধরলা নদীর ওয়াপদা বাঁধটি বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে।

যেকোনো সময় নদী ভাঙ্গনের কবলে প্লাবিত হতে পারে মোগলহাট, কুলাঘাট ও বড়বাড়ী ইউনিয়নসহ শত শত বিঘা জমি। জরাজীর্ণ বেড়ি-বাঁধের কারণে নদী ভাঙ্গন আতঙ্ক রাতের ঘুম কেড়েছে মোগলহাট, কুলাঘাট ও বড়বাড়ী ইউনিয়নবাসীর।

স্থানীয়রা জানায়, ধরলা নদীর মোগলহাট, কুলাঘাট ও বড়বাড়ী ইউনিয়নের ওয়াবদা বাঁধটি দীর্ঘদিন অবহেলিত থাকলেও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ কোনো প্রকার পদক্ষেপ নেয়নি। লালমনিরহাট সদর উপজেলার বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত ঘেঁষা মোগলহাট, কুলাঘাট ও বড়বাড়ী ইউনিয়নের লোকজন প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করে আসছি। ইতিমধ্যে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। প্লাবিত হতে পারে মোগলহাট, কুলাঘাট ও বড়বাড়ী ইউনিয়ন এবং শত শত বিঘা জমি।

স্থানীয়রা আরও জানায়, নদী ভাঙ্গনের আতঙ্কে আমাদের রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে। কুলাঘাট ইউনিয়নের চর খাটামারী গ্রামের এস এম হাসান আলী বলেন, ওয়াপদা বাঁধ দেখার দায়িত্ব পানি উন্নয়ন বোর্ডের। ইতিপূর্বে বাঁধ ঠিক করেছিল এবং বর্তমানে ওয়াপদা বাঁধের বেহাল দশা, আমরা আতঙ্কে আছি।

পানি উন্নয়ন বোর্ড নির্বাহী প্রকৌশলী মিজানুর রহমান বলেন, আমরা ক্ষতিগ্রস্ত ওয়াপদা বাঁধগুলো সংস্কার করেছি। বাকি জায়গাগুলো পর্যায়ক্রমে সংস্কার করা হবে।

উল্লেখ্য যে, ধরলা নদী ভাঙ্গন রোধে মোগলহাট, কুলাঘাট ও বড়বাড়ী ইউনিয়নবাসীর সার্বিক নিরাপত্তার স্বার্থে ধরলা নদীর ওয়াপদা বাঁধ সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

এমএসি/আরএইচ